বিবিধ প্রশ্নোত্তর/ফাতাওয়া

জিন আছর করলে তার লক্ষণ কী?

প্রশ্ন : কোনো ব্যক্তিকে যদি জাদু করা হয় বা জিন আছর করে, তবে কী কী লক্ষণ বা উপসর্গ দেখে আমরা তা বুঝব? অনেকে ওঝা বা ফকিরের কাছে যায়, ঘরের মধ্যে কোনো তাবিজ থাকলে তা বের করার জন্য। এ কাজটি ইসলামে কতটুকু সম্মত?

উত্তর : এর সুনির্দিষ্ট কোনো লক্ষণ নেই। যারা এ বিষয়ে বিশেষজ্ঞ রয়েছে, তারা আলোচনার মধ্যে এগুলো উপলব্ধি করতে পারে। আমি একটা নির্দিষ্ট লক্ষণ বলে দিলাম আর আপনি ভাবলেন, এটাই মনে হয় লক্ষণ, বিষয়টি এমন নয়।

আপনি যদি শারীরিক কারণে অসুস্থ বোধ করেন, তাহলে প্রাথমিক কাজ হলো ডাক্তারের কাছে যেতে হবে। ডাক্তার আপনাকে দেখার পর যদি কোনো রোগ ধরতে না পারে, কিন্তু আপনি অসুস্থ বোধ করেন, তাহলে জাদু বা এই বিষয়গুলো সম্পর্কে যাদের অভিজ্ঞতা আছে, তাদের পরামর্শ নিতে পারেন।

কিন্তু প্রথমেই যদি আপনি ফকির, ওঝা, কবিরাজ ইত্যাদি লোকের কাছে যান, তাহলে তারা আপনাকে বলবে মহাজাদু করা হয়েছে; বরং সে নতুন করে জাদু করে আপনাকে বিপদে ফেলে দেবে। এদের মধ্যে অনেক প্রতারকও আছে।

যাঁরা সত্যিকারের কোরআন-হাদিসের জ্ঞান রাখেন, তাঁদের কাছে যান, তাহলে তাঁরা সহিহ দিকনির্দেশনা দান করতে পারবেন। আর ফকির, ওঝা, কবিরাজ এরা কিন্তু সহিহ দিকনির্দেশনা দান করবে না। কারণ, এরা তো ব্যবসা করে।

তবে সবচেয়ে উত্তম পদ্ধতি হলো, প্রথমেই ডাক্তারের কাছে যাওয়া এবং ডাক্তারের চিকিৎসা নেওয়ার পর যদি আপনি ব্যর্থ হন, তাহলে কোরআন ও হাদিসের মধ্যে যে ব্যবস্থা রয়েছে, সেগুলো গ্রহণ করতে পারবেন।

_____________

এনটিভি’র আপনার জিজ্ঞাসা অনুষ্ঠানে প্রশ্নোত্তর দিয়েছেন ড. মুহাম্মাদ সাইফুল্লাহ।

আরও দেখুন:  মুছাফাহার সময় হাত ধরে ঝাঁকি দেওয়া যাবে কি?

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

২টি মন্তব্য

  1. আমার প্রশ্ন হচ্ছে আমি একজন গুনাগার মানুষ আমি করিনি এমন কোন গুনা হয়তবা নাই এর মধ্যে জেনা অন্যতম,এমতাবস্থায় আমার মাঝে মধ্যে রক্ত সম্পর্ক আপন জনের সাথে সপ্নদুষ হয় এখন আমি কি করব, আমার এই গুনার বুঝা আমি আর সইতে পারছিনা, নিজেকে মারাত্মক পাপি মনে হয় আমার এই গুনাহ আল্লাহ ক্ষমা করবেন?

মন্তব্য করুন

Back to top button