বিবিধ প্রশ্নোত্তর/ফাতাওয়া

জুমার দিন মসজিদে দেওয়া খাবার কি বাসায় আনা যাবে?

প্রশ্ন : জুমার দিন মসজিদে দেওয়া খাবার কি বাসায় আনা যাবে? আমরা দেখি যে, জুমার দিন মিষ্টি বা শিরনি দেওয়া হয়। তখন বলা হয়ে থাকে যে, কাজটি পূরণ হয় তাহলে শিরনি দেব। এখন এসব খাবার যদি বাসায় আনি তাহলে কি ঠিক হবে?  

উত্তর : ধন্যবাদ এই ভাইকে। এখানে আপনি যেটা বুঝিয়েছেন। তাতে বলা যায়—এটি মানতই হবে। অনেকটা শর্তযুক্ত। এই ধরনের খাবার বাসায় আনা উচিত নয়। এটা শুধুমাত্র ফকির-মিসকিনদেরই হক। আপনার জন্য উচিত নয় এই খাবার নিয়ে আনা এবং নিজের বাচ্চাকে খাওয়ানো। তবে এটার ধরন যদি এমন হয় যে—যদি তিনি নিয়ত করেন যে মসজিদের মুসল্লিদের খাওয়াবো তখন আনতে পারবেন। কিংবা কোনো মানত না থাকে তাহলে আনতে পারবেন। কিন্তু মানত হলে খাওয়াতে পারবেন না বাসায় আনতেও পারবেন না। তাই বিষয়টি স্পষ্ট করে বোঝা উচিত।

প্রশ্নের উত্তর দিয়েছেন বিশিষ্ট আলেম ড. মোহাম্মদ সাইফুল্লাহ।

আরও দেখুন:  রাসূলুল্লাহ (ছাঃ) বলেন, ‘চল্লিশটি (উত্তম) স্বভাব রয়েছে। তন্মধ্যে সবচেয়ে উন্নত স্বভাব হ’ল দুধেল প্রাণী কাউকে দান করা। যে কোন আমলকারী ঐ স্বভাবগুলির কোনটির উপর ছওয়াব লাভের উদ্দেশ্যে ও তার জন্য প্রতিশ্রুত প্রতিদানের বিষয়কে সত্য জেনে আমল করবে তাকে অবশ্যই মহান আল্লাহ জান্নাতে দাখিল করবেন’ (বুখারী হা/২৬৩১)। উক্ত হাদীছে বর্ণিত চল্লিশটি স্বভাব কি কি?

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

Back to top button