নির্বাচিত ফেসবুক স্ট্যাটাস

পরীক্ষার ফল বেশিরভাগ সময় মানুষকে কষ্ট দেয় – এটা একটা মিথ্যা প্রতিযোগীতা

বলেন তো ভাই, ট্রেনের এনজিন কয় স্ট্রোকের? আমি মূহুর্তে চলে গেলাম ইন্টারের ফিজিক্স বইয়ে। এখনও চোখে ভাসে সেগুলো। পৃষ্ঠা উলটাতে লাগলাম। পেলাম না। এবার যা জানি ভাবা শুরু করলাম। একটা উত্তর দিলাম — ঠিক হয়নি।
ছেলেটা উত্তরটা বলে দিল। সরোবর বিতরণের প্রধান। পেশায় ডিপ্লোমা এনজিনিয়ার। ডিগ্রির বিচারে আমার থেকে ছোট। কিন্তু অনেক জ্ঞানে বড়। যেমন এই জ্ঞানটা।
নতুন জিনিসটা জানার পর থেকে গরুর মতো জাবর কাটতে লাগলাম। আমার জানা দুনিয়ার তাবত এনজিনের সাথে মিলিয়ে দেখলাম। হু, কথাটা ঠিক আছে।
এই সময়টাতে যে কী আনন্দ পেয়েছি এটা বলে বোঝানো যাবে না।
ইসলামের স্কলাররা এজন্যই বলতেন ইলমে আনন্দ আছে – এমন আনন্দ যার খোঁজ পেলে রাজা-বাদশারা যুদ্ধ শুরু করে দিত।
আজ এসএসসির ফল বের হয়েছে। মনে পড়ে গেছে ২০০০ সালের কথা। ফল পেয়ে মনটা খারাপ। আমার এক বন্ধু আমার চেয়ে ভালো করেছে – কিন্তু ওর চেয়ে আমি নিজেকে উত্তম ভাবতাম।
বিছানার শুয়ে বালিশ ভেজাচ্ছি।
কী অর্থহীন সে ভেজানো আজ বুঝি।
সেই ফলের কতটুকু প্রভাব আমার জীবনে আজ বুঝি।
জ্ঞান মানুষকে আনন্দ দেয় – জ্ঞান পাওয়ার আনন্দ, বিতরণের আনন্দ।
পরীক্ষার ফল বেশিরভাগ সময় মানুষকে কষ্ট দেয় – এটা একটা মিথ্যা প্রতিযোগীতা।
জ্ঞানের দিকে আগাই, আনন্দের দিকে আগাই।
পরীক্ষার ফল পেছন পেছন তাড়া করবে। যদি না-ও করে ক্ষতি নেই। আল্লাহ যা দেবেন তাতেই মঙ্গল আছে।

(২০১৭ সালের এসএসসি পরীক্ষার ফলাফল প্রসঙ্গে লেখা)

আরও দেখুন:  পৃথিবীতে অ্যাবসোলুট বলতে খুব কম জিনিস আছে

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

Back to top button