সংবাদ

পুনঃনির্বাচিত হলে, ফিলিস্তিন রাষ্ট্র থাকবে না: নেতানিয়াহু

ইসরাইলে অনুষ্ঠিত সাধারণ নির্বাচনে অনেকটা অপ্রত্যাশিতভাবেই প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহুর দল ডানপন্থী লিকুদ পার্টি জয়লাভ করেছে। ফলে, পরপর তৃতীয় মেয়াদে প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হতে চলেছেন নেতানিয়াহু, এটা প্রায় নিশ্চিত। তবে ভোট-গণনার চূড়ান্ত ফলাফল এখনও ঘোষণা করা হয়নি। সর্বশেষ খবরে জানা গেছে, ১২০ আসনের পার্লামেন্টে ২৯টি আসন পেতে চলেছে নেতানিয়াহুর দল। অন্যদিকে, জিওনিস্ট ইউনিয়ন পাচ্ছে ২৪টি আসন। এ খবর দিয়েছে অনলাইন বিবিসি। নির্বাচনের আগে মতামত জরিপে প্রধান প্রতিদ্বন্দ্বী আইজ্যাক হেরজোগের নেতৃত্বাধীন মধ্য-বামপন্থী দল জিওনিস্ট ইউনিয়নের চেয়ে পিছিয়ে থেকেও জয় পায় নেতানিয়াহুর দল। জনপ্রিয়তায় পিছিয়ে পড়েছিল নেতানিয়াহুর নেতৃত্বাধীন লিকুদ পার্টি। লিকুদ পার্টির জন্য একে ‘মহান বিজয়’ বলে বর্ণনা করেন ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী। ‘সব প্রতিকূলতার বিরুদ্ধে’ এ ফলাফল অর্জিত হয়েছে বলে মন্তব্য করেন নেতানিয়াহু। নির্বাচনে জয়লাভ চূড়ান্ত হওয়ার অর্থ, আরও একবার জোট সরকার গঠন করবেন নেতানিয়াহু। জোট গঠনে অন্যান্য দলের সমর্থন প্রয়োজন হবে প্রধানমন্ত্রীর।

নির্বাচনের প্রাক্কালে ইসরাইলি প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু বলেছেন, তিনি পুনঃনির্বাচিত হলে, কোন ফিলিস্তিন রাষ্ট্র থাকবে না। নেতানিয়াহু সরকারি এক রেডিওতে দেয়া সাক্ষাৎকারে বলেন, দুই-রাষ্ট্র সমাধান এখন অপ্রাসঙ্গিক। তিনি বলেন, বাস্তবতা পরিবর্তিত হয়েছে। পরপর দুই মেয়াদে ইসরাইলের প্রধামন্ত্রীর দায়িত্ব পালন করেছেন তিনি। দেশটির সাধারণ নির্বাচনের ঠিক আগে তৃতীয়বারের মতো ডানপন্থী ভোটারদের মন জয় করতে নেতানিয়াহু এ প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন। এ খবর দিয়েছে বার্তা সংস্থা এএফপি।

হার হোমা অঞ্চলে নির্বাচনী প্রচারণায় অংশ নেয়ার সময় নেতানিয়াহু বলেন, আমরা জেরুজালেমের শক্তি বৃদ্ধি করতে থাকবো। সেক্ষেত্রে জেরুজালেমের বিভাজন সম্ভব হবে না এবং চিরকাল ঐক্যবদ্ধ থাকবে। অন্যদিকে, তিনি মনে করেন প্রতিদ্বন্দ্বী দল জিতলে, সেক্ষেত্রে তারা দেশের নিরাপত্তার সঙ্গে আপোস করবে। জেরুজালেমের ওপর ইসরাইলি নিয়ন্ত্রণও থাকবে না। জেরুজালেম শহরের পূর্বাঞ্চলে ফিলিস্তিনকে কখনও রাজধানী স্থাপন না করতে দেয়া এবং হাজার হাজার নতুন বসতি স্থাপনেরও প্রত্যয় ব্যক্ত করেন নেতানিয়াহু। ফিলিস্তিনিরা পূর্ব জেরুজালেমে তাদের ভবিষ্যত রাষ্ট্রের রাজধানী স্থাপন করতে চায়। বিরোধী দল জিওনিস্ট ইউনিয়নের নেতা আইজ্যাক হেরজোগ ও সাবেক শান্তি বিষয়ক মধ্যস্থতাকারী তাজিপি লিভনি ইসরাইলের নিয়ন্ত্রণ থেকে জেরুজালেমের অধিকার ছাড়তে প্রস্তুত বলে বারবার অভিযোগ আনেন নেতানিয়াহু।

আরও দেখুন:  সোমবার থেকে পবিত্র রমজান

মানবজমিন

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

Back to top button