সংবাদ

মহারাষ্ট্রে গোরুর মাংস নিষিদ্ধে নিন্দা

মহারাষ্ট্রে গোরুর মাংস নিষিদ্ধ হওয়া নিয়ে তীব্র নিন্দায় সরব হয়েছে ভারতের তৃণমূল কংগ্রেস। মহারাষ্ট্র সরকারের সিদ্ধান্তে রাজ্যসভায় উদ্বেগ প্রকাশ করে গরুর গোশত নিষিদ্ধকে যৌন হেনস্থার থেকেও গুরুতর অপরাধ বলে দাবি করেন তৃণমূল এমপি ডেরেক ও’ব্রায়েন।

বুধবার রাজ্যসভার জিরো আওয়ারে বক্তব্য পেশের সময় গরুর গোশত নিষিদ্ধ প্রসঙ্গে ডেরেক বলেন, ‘এই নিষেধাজ্ঞা শুধু অর্থনীতিতেই প্রভাব ফেলবে না, গরুর গোশত নিষিদ্ধ করা যৌন হেনস্থার থেকেও গুরুতর অত্যাচার।’ এই ইস্যুকে শুধুমাত্র ধর্মীয় দিক থেকে দেখা উচিত নয়। কারণ সংখ্যালঘু ছাড়াও বহু দলিত ও উত্তর-পূর্ব ভারতের বাসিন্দারা গরুর গোশত খান। গরুর মাংসকে ‘গরিব মানুষের প্রোটিন’ বলেও মত প্রকাশ করেন তৃণমূল এমপি ডেরেক।

এদিন রাজ্যসভায় গোমাংস নিষিদ্ধ ইস্যুতে ডেরেক আরও বলেন, ‘এই নিষেধাজ্ঞার জেরে মুরগি ও মাছের দাম বাড়বে। একই সঙ্গে বেশ একটা বড় অংশের ব্যবসায়ী রোজগারে প্রভাব পড়বে।’ তৃণমূল এমপি ডেরেক ও’ব্রায়েনের বক্তব্য প্রসঙ্গে রাজ্যসভার ডেপুটি চেয়ারম্যান পি জে কুরিয়েন জানান, সাধারণ মানুষের স্বার্থের সঙ্গে জড়িত যেকোনো বিষয় নিয়েই রাজ্যসভার সদস্যরা মত ব্যক্ত করতে পারেন। যদিও ডেপুটি চেয়ারম্যানের বক্তব্যের বিরোধিতা করে কেন্দ্রীয় পার্লামেন্টবিষয়ক প্রতিমন্ত্রী মুখতার আব্বাস নকভির বক্তব্য, এই ইস্যু নিয়ে কোনো আলোচনা করাই উচিত নয়।

(নয়া দিগন্ত)

আরও দেখুন:  চীনের জিনজিয়াংয়ে বোরকা নিষিদ্ধ

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

Back to top button