সংবাদ

রোহিঙ্গাদের ভিন দেশে পাঠানোর সমর্থনে বৌদ্ধ ভিক্ষুরা

মিয়ানমারের শত শত বৌদ্ধ ভিক্ষু আজ রোববার রোহিঙ্গা ইস্যুতে দেশটির প্রেসিডেন্টের পদক্ষেপের সমর্থনে মিছিল-সমাবেশ করেছেন। প্রেসিডেন্ট সংখ্যালঘু মুসলমান রোহিঙ্গাদের ভিন্ন কোনো দেশে পাঠিয়ে দেওয়ার পরিকল্পনা হাজির করেছেন।
টাইমস অব ইন্ডিয়ার এক খবরে আজ বলা হয়, গত জুন মাসে দেশটিতে সংখ্যালঘু রোহিঙ্গাদের সঙ্গে রাখাইন বৌদ্ধদের জাতিগত দাঙ্গায় ৮০ জন নিহত হয় এবং উদ্বাস্তু হয় কয়েক হাজার মানুষ। দাঙ্গার পর আজকের সমাবেশই বৌদ্ধদের এ ধরনের সবচেয়ে বড় বিক্ষোভ। মান্দালেইতে অনুষ্ঠিত এই কর্মসূচির মধ্য দিয়ে দেশটিতে রোহিঙ্গাবিরোধী মনোভাবের সংগঠিত প্রকাশ হলো।
সমাবেশে ভিক্ষুদের ব্যানারে যা লেখা ছিল তার অর্থ হলো, ‘প্রেসিডেন্টকে সমর্থন করুন, মাতৃভূমি মিয়ানমারকে বাঁচান’।
প্রেসিডেন্ট থান সেইন গত জুলাই মাসে প্রস্তাব করেন, রোহিঙ্গাদের নিতে ইচ্ছুক এমন যেকোনো দেশে তাদের পাঠিয়ে দেওয়া হবে। তবে জাতিসংঘের শরণার্থীবিষয়ক অধিদপ্তর তত্ক্ষণাত্ সে প্রস্তাবের প্রতিবাদ করে।
মিয়ানমার দাবি করে আসছে, রোহিঙ্গারা বাংলাদেশ থেকে অবৈধভাবে অনুপ্রবেশ করেছে। তবে বাংলাদেশ বারবার বলে আসছে, রোহিঙ্গারা হাজার হাজার বছর ধরে ওই এলাকায় বাস করছে। এর ঐতিহাসিক নথিপত্রও সহজলভ্য। জাতিসংঘের হিসাব মতে, মিয়ানমারের রাখাইন রাজ্যে প্রায় আট লাখ আদিবাসী রোহিঙ্গাদের বাস। ধারণা করা হয়, সাম্প্রদায়িক কারণে এবং রাখাইন রাজ্যে খনিজসম্পদের দখল নিতেই সংখ্যাগুরু বৌদ্ধরা আদিবাসী রোহিঙ্গাদের তাদের বাসস্থান থেকে উচ্ছেদ করতে চায়।

আরও দেখুন:  মদ্যপানের কোন নিরাপদ মাত্রা নেই

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

Back to top button