কুরআন

পবিত্র কুরআনের ১১৪টি সুরা’র নাম ও তার বাংলা অর্থ


সুরাহ্‌ নং

সুরাহ্‌ নাম

*১ আল ফাতিহাহ্‌ (প্রারম্ভ)
*২ আল বাক্কারাহ্‌ (বকনা বাছুর)
*৩ আল ইমরান (ইমরান এর বংশধর)
*৪ আল-নিসা’ (নারী)
*৫ আল মা’ইদাহ্‌ (ভোজ)
*৬ আল আন’আম (গবাদি পশু)
*৭ আল আ’রাফ (প্রতিবন্ধক)
*৮ আল আনফাল্‌ (যুদ্ধক্ষেত্রের পরিত্যাক্ত সম্পদ)
*৯ তাওবাহ্‌ (অনুশোচনা)
*১০ ইউনুস (ইউনুস নবী)
*১১ হুদ ( হুদ নবী)
*১২ ইউসুফ (ইউসুফ নবী)
*১৩ আল-রা’দ (বজ্র)
*১৪ ইব্রাহিম (ইব্রাহিম নবী)
*১৫ আল হিজর্‌ (হিজর্‌ অধিবাসী)
*১৬ আন নাহল্‌ (মৌমাছি)
*১৭ ইস্‌রা (রাতের যাত্রা)
*১৮ আল কাহাফ (গুহা)
*১৯ মারইয়াম (মারইয়াম)
*২০ তা হা
*২১ আল আন্‌বিয়া (নবী রাসুল)
*২২ আল হাজ্জ্‌ (তীর্থযাত্রা)
*২৩ আল মু’মিনুন (বিশ্বাসীগণ)
*২৪ আল নুর (আলো)
*২৫ আল ফুরক্কান (নির্ণায়ক)
*২৬ আল শু’রা’ (কবি)
*২৭ আন নামল্‌ (পিঁপড়া)
*২৮ আল কাসাস (ঘটনা – বিবরণ)
*২৯ আল ‘আনকাবুত (মাকড়সা)
*৩০ আল রুম (রোমান জাতি)
*৩১ লুক্কমান (লুক্কমান নবী)
*৪৫ আল জাথিয়াহ্‌ (নতজানু)
*৪৬ আল আহ্‌ক্কাফ (বালিয়াড়ি পাহাড়)
*৪৭ মুহাম্মাদ (মুহাম্মাদ নবী)
*৪৮ আল ফাতহ্‌ (বিজয়)
*৪৯ আল হুজুরাত (কক্ষ)
*৫০ ক্কাফ
*৫১ আঝ ঝারিয়াত (ঝঞ্চাবিক্ষুব্ধ বাতাস)
*৫২ আত তুর (পাহাড়)
*৫৩ আল নাজম্‌ (তারকা)
*৫৪ আল ক্কামার্‌ (চন্দ্র)
*৫৫ আর রাহমান (পরম করুণাময়)
*৫৬ আল ওয়াক্কি’আহ (ভবিতব্য)
*৫৭ আল হাদিদ (লোহা)
*৫৮ আল মুজাদিলাহ্‌ (তর্ককারী মহিলা)
*৫৯ আল হাশর্‌ (সমাবেশ)
*৬০ আল মুম্‌তাহিনা (পরীক্ষিত)
*৬১ আস সফ্‌ (সৈন্য শ্রেণী)
*৬২ আল জুমু’আহ্‌ (শুক্রুবার)
*৬৩ আল মুনাফিক্কুন (ভণ্ড)
*৬৪ আত তাঘাবুন (পারস্পরিক অনুযোগ)
*৬৫ আত তালাক্ক (বিবাহবিচ্ছেদ)
*৬৬ আত তাহ্‌রিম (নিষেধাজ্ঞা)
*৬৭ আল মুলক্‌ (আধিপত্য)
*৬৮ আল ক্কালাম (কলম)
*৬৯ আল হাক্কাহ্‌ (অনিবার্য সত্য)
*৭০ আল মা’আরিজ (ঊর্ধ্বারোহণের পথ)
*৭১ নুহ্‌ (নুহ্‌ নবী)
*৭২ আল জিন (জিন্‌)
*৭৩ আল মুয্‌যাম্মিল (আবৃত)
*৭৪ আল মুদ্দাথ্‌থির (লুক্কায়িত)
*৭৫ আল ক্কিয়ামাহ্‌ (পুনরুত্থান)
*৭৬ আদ দাহর্‌ (সময়)
*৭৭ আল মুরসালাত (ফেরেশতা)
*৭৮ আল নাবা’ (দুর্দান্ত খবর)
*৭৯ আল নাযি’আত (যমদূত)
*৮০ ‘আবাসা (সে ভ্রুকুঞ্চিত করল)
*৮১ আল তাকওয়ির (গুটানো সূর্য)
*৮২ আল ইনফিতার (বিদীর্ণ আসমান)
*৮৩ আল মুতাফ্‌ফিফিন (ধোঁকাবাজ)
*৮৪ আল ইনশিক্কাক্ক (বিচূর্ণ আসমান)
*৮৫ আল বুরুজ (নক্ষত্রপুঞ্জ)
*৮৬ আত তারিক্ক (রাতের তারা)
*৮৭ আল আ’লা (সর্বোচ্চ মহিমা)
*৮৮ আল ঘাশিয়াহ্‌ ( ধ্বংসাত্মক ঘটনা)
*৮৯ আল ফাজর্‌ (ঊষা)
*৯০ আল বালাদ (নগর)
*৯১ আল শামস্‌ (সূর্য)
*৯২ আল লাইল (রাত্রি)
*৯৩ আদ দুহা (আলোকোজ্জ্বল সকালের আলো)
*৯৪ আল ইনশিরাহ্‌ (অন্তর সম্প্রসারণ)
*৯৫ আত তিন (ডুমুর গাছ)
*৯৬ আল ‘আলাক্ক (জমাট বাঁধা রক্তপিণ্ড)
*৯৭ আল ক্কাদর্‌ (সম্মানের রাত্রি)
*৯৮ আল বাইয়িনাহ্‌ (সুস্পষ্ট প্রমাণ)
*৯৯ আল যালযালাহ্‌ (ভুমিকম্প)
*১০০ আল ‘আদিয়াত (ঘোড়া)
*১০১ আল কারি’আহ্‌ (মহা দুর্যোগ)
*১০২ আল তাকাথুর (প্রাচুর্য)
*১০৩ আল ‘আসর্‌ (সময়)
*১০৪ আল হুমাযাহ্‌ (কুৎসারটনাকারী)
*১০৫ আল ফিল (হাতি)
*১০৬ কুরাইশ (কুরাইশ বংশ)
*১০৭ আল মা’উন (দানশীলতা)
*১০৮ আল কাওথার (আধিক্য)
*১০৯ আল কাফিরুন (অবিশ্বাসীগণ)
*১১০ আল নাসর্‌ (সাহায্য)
*১১১ আল মাসাদ (বিজরিত দড়ি)
*১১২ আল ইখলাস (বিশ্বাস এর বিশুদ্ধতা)
*১১৩ আল ফালাক (উজ্জ্বল প্রভাত)
*১১৪ আল নাস (মানবজাতি)
আরও দেখুন:  আরবী ভাষা কুরআন বুঝার চাবিকাঠি

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

Back to top button