সাম্প্রতিক প্রসঙ্গ

কী দেখছেন বিজ্ঞাপনে : পরকীয়ার হাতছানি!

মধ্যবয়সী একজন গৃহিনী গোসল করে বাথরুম থেকে বের হয়েছেন। এমন সময় সে এক ধরনের তীব্র সুগন্ধ অনুভব করল। কোথা থেকে আসছে এ সুগন্ধ? সুগন্ধের উৎস খুঁজতে গিয়ে জানালা দিয়ে তার চোখ পড়ল পাশের বাসায় ব্যালকনিতে দাড়ানো সুঠাম এক ব্যক্তির প্রতি। তার শরীর থেকেই আসছে তীব্র এ সুগন্ধ। এ সুগন্ধীতে রয়েছে এক ধরনের মাদকীয় আকর্ষণ। সে আকর্ষনের কারনে মহিলা পুরুষটির প্রতি কাতর হয়ে পড়ে। এরপর মহিলা বসে গেল ড্রেসিংটেবিলের সামনে সাজগোজের জন্য। তার পোশাক খোলামেলা। ড্রেসিংটেবিলে বসে ঠোটে লিপস্টিক লাগাচ্ছে আর বাকা চোখে বিশেষ ভঙ্গিতে একটু পরপর তাকাচ্ছে পুরুষ লোকটির দিকে।

এ তাকানোর মধ্যে আছে এক ধরনের বার্তা । পুরুষ লোকটিও দেখছে মহিলার চাহনি এবং লক্ষ্য করছে তার গতিবিধি। সাজগোজ শেষ করে মহিলাটি যুবকের দিকে বিশেষ ভঙ্গিতে চোখ রেখে দেয়াল ঘেষে ঘেষে দরজার দিকে এগিয়ে যায়। এরপর লোকটিকে দেখিয়ে দেখিয়ে দরজা থেকে বের হয়ে গেল সে। একটু পরেই লোকটির দরজার কলিংবেল বেজে উঠল। বেল বাজার সাথে সাথে লোকটি চোখে মুখে একটি বিশেষ ভঙ্গি প্রকাশ করল । তার অর্থ হল সে বুঝতে পেরেছে একটু আগে পাশের বাসার যে মহিলাটি সাজগোজ করে দরজা থেকে বের হয়েছে সে-ই এখন এসেছে তার দরজায়।
এরপর টিভির পর্দায় দেখানো হয় লোকটি তার শরীরে বডি স্প্রে ব্যবহার করছে । এরপর পর্দায় বডি স্প্রের নাম ভেসে ওঠে। অর্থাৎ এ বডি স্প্রে যারা ব্যবহার করবে তাদের প্রতি এভাবে নারীরা চুম্বকের মত আকৃষ্ট হয়ে ছুটে আসবে। পুরো বিজ্ঞানপটির সময় মহিলা এবং পুরুষটির পরষ্পরের প্রতি তাকানো, ভাব প্রকাশের সাথে এমন এক ধরনের মিউজিক বাজানো হয় যার সবকিছু মিলিয়ে একটি বিশেষ ধরনের আবহ তৈরি করে যা মন মগজকে আচ্ছ্বন্ন করে।

বডি স্প্রের আরেকটি বিজ্ঞাপনে দেখা যায় শাড়ি পরা এক মহিলা শিশুদের সাথে ঘরের সামনে খোলা জায়গায় কানামাছি খেলছে। মহিলার চোখ বাঁধা কাপড় দিয়ে। এমন সময় তার নাকে ভেসে আসল সুগন্ধ। মহিলাটি তখন চোখ থেকে কৌশলে একটুখানি কাপড় সরিয়ে দেখে নিল কোথা থেকে আসছে এ সুগন্ধ। সে দেখল দরজায় এক লোক দাড়িয়ে আছে। এরপর সে এক ধরনের বিশেষ ভঙ্গিতে, বিশেষ এক ধরনের অর্থ প্রকাশ করে নিজের ঠোট কামড়াল ধীরে ধীরে। তারপর সে কানামাছি খেলার ছলে হাতড়ানোর ভান করে লোকটির ঘরে ঢুকল এবং তারপর নিজেই চোখ খুলে লোকটির সামনে দাড়ায়।

আরও দেখুন:  ইহুদি হয়েও আমি কেন ইসরাইলকে সমর্থন করি না

বিভিন্ন বহুজাতিক কোম্পানির বডি স্প্রের যেসব বিজ্ঞাপন ভারতে নির্মিত হয়েছে তার বেশ কয়েকটির থিম এরকমই। অর্থাৎ যেকোন তরুন বা পুরুষ লোক বডি স্প্রে ব্যবহার করলে বিবাহিত মেয়েরাও ছুটে আসে তার কাছে।

বডি স্প্রের অপর কিছু কিছু বিজ্ঞাপনে দেখা যায় কোন যুবক বডি স্প্রে ব্যবহার করে রাস্তা দিয়ে হাটার সময় সব মেয়েরা তার দিকে চুম্বকের মত আকর্ষণ অনুভব করে । কেউ কেউ সম্মোহিত হয়ে তার দিকে চলে আসতে থাকে। আর পাশ্চাত্যে নির্মিত কিছু বিজ্ঞাপনে দেখা যায় বডি স্প্রে ব্যবহার করলে দুনিয়ার যেখানে যত যুবতী আছে সবাই তীব্র আকর্ষনে মাঠ ঘাট, বন জঙ্গল, সমুদ্র সৈকত সবকিছু পেরিয়ে ছুটে আসতে থাকে পাগলের মত।

ভারতের বাংলা এবং হিন্দি যেসব স্যাটেলাইট টিভি এদেশে সম্প্রচার করা হচ্ছে তার সবগুলোতে প্রতিদিন এসব বিজ্ঞাপন দেখানো হচ্ছে। বাংলাদেশী স্যাটেলাইট টিভির বিজ্ঞাপন যেমন বাসার সবাই দেখছে তেমনি একইভাবে সবাই দেখছে এসব বিজ্ঞাপন। ডিশের কারনে এখন আর দেশের চ্যানেল আর বিদেশের চ্যানেল বলতে কিছু নেই। বরং অনেক ক্ষেত্রে দেশের চেয়ে বিদেশের বিভিন্ন স্যাটেলাইট টিভিই বেশি দেখে থাকে দর্শকরা। বিদেশী বিশেষ করে ভারতীয় বিভিন্ন স্যাটেলাইট টিভির বিভিন্ন অনুষ্ঠান এদেশে বেশ জনপ্রিয়। তাছাড়া যখন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বা অন্য কোন জনপ্রিয় খেলা হয় তখন ভারতীয় এসব বিজ্ঞাপনের পাশপাশি পাশ্চাত্যে নির্মিত অনেক বহুজাতিক কোম্পানির বিজ্ঞাপন প্রচার করা হয় একটু পরপর এবং এ ক্ষেত্রে কোন কোন বিজ্ঞাপন থাকে বেশ খোলামেলা ধরনের যা অনেক সময় সিনেমার আপত্তিকর দৃশ্যকেও হার মানায়।

বডি স্প্রের ভারতীয় বিজ্ঞাপনের পরকীয়ার থিমের আচ লেগেছে বাংলাদেশের টিভি বিজ্ঞাপনেও। বাংলাদেশে একটি বিজ্ঞাপনে দেখা যায় এক তরুন দম্পতি সিনেমা হলে সিনেমা দেখছে। স্ত্রী স্বামীর কাঁধে মাথা রেখে সিনেমা উপভোগ করছে। এমন সময় স্ত্রীর সামনে দিয়ে এক যুবক হেটে গেল। ওই যুবকের শরীর থেকে আসা সুগন্ধ মাতোয়ারা করে দিল ওই স্ত্রী লোকটির। সে সম্মোহিত হয়ে আস্তে আস্তে চলে যায় ওই যুবকের কাছে এবং তার পাশের সিটে গিয়ে বসে । এরপর সিনেমায় একটি ভয়ের দৃশ্য দেখার সময় ভয় পাবার ভান করে সে জড়িয়ে ধরে যুবকটিকে।

আরও দেখুন:  তালেবানদের পুনরুত্থান ও আমাদের প্রত্যাশা

বিশেষজ্ঞদের মতে কিছু কিছু বিজ্ঞাপন আছে যাতে মেয়েদের বেশ খোলামেলা পোশাকে উপস্থাপন করা হয় এবং অশ্লীল অঙ্গভঙ্গিসহকারে নাচানাচিও থাকে। কিন্তু মানব মনে এর যে প্রভাব পড়ে তার চেয়েও অনেক বেশি রেখাপাত করে খারাপ থিম সম্পর্কিত বিজ্ঞাপনগুলো। যেমন বডি স্প্রে বা পারফিউমের আকর্ষনে মধ্যবয়সী মহিলা সাজগোজ করে পাশের বাসার পুরুষের কাছে চলে যাওয়া বা এজাতীয় থিমের যে বিজ্ঞাপন তা অনেক বেশি ভয়াবহ এবং মারাত্মক। মানুষের চিন্তাজগতে এর প্রভাব অত্যন্ত খারাপ হয়ে থাকে।

ফেসবুক, ব্লগসহ বিভিন্ন যোগাযোগ মাধ্যমে এ জাতীয় বিজ্ঞাপনের সমালোচনা করা হচ্ছে। শিশু কিশোর এবং যুবক যুবতীদের ওপর এ প্রভাব নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বিভিন্নজন বিভিন্নভাবে এসব বিজ্ঞাপন তৈরি এবং প্রচারের প্রতিবাদ করছেন। বডি স্প্রে, পারফিউম এর বিজ্ঞাপনের সমালোচনা করে একজন দর্শক মন্তব্য করেছেন এসব বডি স্প্রে বা পারফিউম নয় যেন নারী বশীকরন কোন তাবিজ। সেটাই মূলত উপস্থাপন করা হয় বিজ্ঞাপনের মাধ্যমে।

(অন্য দিগন্ত)

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আরও দেখুন
Close
Back to top button