হজ্জ ও ওমরাহ

১০ লাখ মুসল্লি নিয়ে দু’বছর পর বড় পরিসরে হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু

সৌদি আরবে ১০ লাখ মুসলিমের অংশগ্রহণে চলতি বছরের হজের আনুষ্ঠানিকতা শুরু হয়েছে। মক্কায় কাবা শরীফ তাওয়াফের মধ্য দিয়ে আনুষ্ঠানিকভাবে হজ পালন শুরু করেছেন মুসল্লিরা।

বৃহস্পতিবার (৭ জুলাই) হজযাত্রীরা মিনার উদ্দেশ্যে যাত্রা শুরু করেছেন। মিনায় যাত্রার মধ্য দিয়ে শুরু হওয়া হজ ১২ জিলহজ শয়তানকে পাথর নিক্ষেপের মধ্য দিয়ে শেষ হবে।

২০১৯ সালে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় ২৫ লাখ মুসল্লি হজে অংশ নেন। কিন্তু এরপর করোনা মহামারি ছড়িয়ে পড়লে ২০২০ ও ২০২১ সালে সীমিত পরিসরে হজ পালিত হয়।

৪২ ডিগ্রি সেলসিয়াস উচ্চ তাপমাত্রা থাকায় হজযাত্রীদের অনেকেই ছাতা ব্যবহার করছেন।

হজযাত্রীদের স্বাস্থ্যসেবা ও নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে ব্যাপক প্রস্তুতি নিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ।

সৌদির স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় মক্কা ও মদিনায় ২৩টি হাসপাতাল ও ১৪৭টি স্বাস্থ্যকেন্দ্র প্রস্তুত রেখেছে।

মিনায় হজযাত্রীদের স্বাস্থ্যসেবায় তৈরি আছে ২৬টি স্বাস্থ্যকেন্দ্র। এছাড়া নিবিড় পরিচর্যার জন্য এক হাজারটি শয্যা তৈরি রাখা হয়েছে। হার্টস্ট্রোক রোগীদের জন্য বিশেষভাবে ২০০টির বেশি শয্যা প্রস্তুত আছে।

হজযাত্রীদের স্বাস্থ্যসেবায় নিয়োজিত থাকবে ২৫ হাজারের বেশি স্বাস্থ্যকর্মী।

চলতি বছর ১০ লাখ পূর্ণাঙ্গভাবে ভ্যাকসিন গ্রহণকারী মুসলিম হজে অংশ নেওয়ার সুযোগ পেয়েছেন। এর মধ্যে সৌদি আরবের বাইরে থেকে এসেছে সাড়ে ৮ লাখ হজযাত্রী।

২০১৯ সালে বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে প্রায় ২৫ লাখ মুসল্লি হজে অংশ নেন। কিন্তু এরপর করোনা মহামারি ছড়িয়ে পড়লে ২০২১ সালে কেবল সৌদির টিকা গ্রহণকারী ৬০ হাজার মুসল্লি হজে অংশ নেওয়ার সুযোগ পান। ২০২০ সালে অংশগ্রহণকারীদের সংখ্যা ছিল আরও কম।

দুবছর পর এবারই প্রথম বড় পরিসরে হজ অনুষ্ঠিত হচ্ছে।

আরও দেখুন:  ভারতে এবার সর্বোচ্চ সংখ্যক হজ্জযাত্রী

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

আরও দেখুন
Close
Back to top button