মুসলিম জাহান

মিসরের আলেকজান্দ্রিয়া লাইব্রেরীতে ৫০ লাখ বই!

রোম সাগরের উপকূলে একটি হরদ লাগোয়া ৬ তলা বিশিষ্ট মিসরের আলেকজান্দ্রিয়া লাইব্রেরীতে বর্তমানে ৫০ লাখ গ্রন্থ মওজূদ রয়েছে। ১ম তলায় দর্শন, ধর্মীয় বিষয়াবলী, ভূগোল, ইতিহাস, মানচিত্র, দুর্লভ গ্রন্থসমূহ এবং এগুলির সিডি প্রভৃতি রয়েছে। ২য় তলায় ভাষা ও সাহিত্য সম্পর্কিত গ্রন্থসমূহ, শ্রবণ ও দর্শনযোগ্য  যন্ত্রপাতি এবং অন্যান্য শিক্ষা উপকরণ, ৩য় তলায় শিল্পকলার ৭০০, সংগীতের ৭৮০ প্রকার এবং এতদসংশ্লিষ্ট প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ও গ্রন্থ, ৪র্থ তলায় পান্ডুলিপি, বিভিন্ন জ্ঞান-বিজ্ঞান ও শিল্পকলার নিদর্শন, বিশ্বকোষ, সাধারণ জ্ঞান, গ্রন্থাগার বিজ্ঞান, ইউরোপ, মিসর প্রভৃতি সম্পর্কে লক্ষাধিক গ্রন্থ, ৫ম তলায় কনফারেন্স হল, মিটিং রুম, টলেমী গ্যালারী, ত্বহা হুসাইনের গ্রন্থাগার এবং ৩০০ মানববিদ্যা সম্পর্কিত হাযার হাযার কিতাব, ৬ষ্ঠ তলায় বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি এবং গবেষণার জন্য যাবতীয় সুযোগ-সুবিধা এবং আন্তর্জাতিক স্টাডি সম্পর্কিত শাখা সমূহ রয়েছে। এ তলায় লাইব্রেরিয়ানদের কক্ষ রয়েছে। যেখান থেকে পুরা লাইব্রেরী তত্ত্বাবধানের দায়িত্ব পালন করা হয়। লাইব্রেরীর অধিকাংশ গ্রন্থ আরবী, ইংরেজী, ফারসী, ফরাসী, ইতালী, জাপানী প্রভৃতি ভাষায়। এর উচুঁ দেয়ালগুলিতে অধিকাংশ ভাষার প্রাথমিক দিকের বর্ণসমূহ লিখিত আছে। লাইব্রেরী চত্বরে অবস্থিত বিশাল গম্বুজে জাদুঘর রয়েছে। যেখানে প্রাচীন মিসরীয় ক্যালেন্ডার ছাড়াও বিশ্বশাসক বিশেষত সুলতান মাহমূদ গযনভী এবং সুলতান কুতুবুদ্দীন আইবেকসহ পৃথিবীর বিখ্যাত শাসকদের ছবি রয়েছে (মা‘আরিফ, নভেম্বর’১৭, পৃঃ ৩৯২-৯৩)

আরও দেখুন:  পুণ্যভূমি মক্কা : মর্যাদা ও বৈশিষ্ট্য

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

Back to top button