সাম্প্রতিক প্রসঙ্গ

ডা. জাকির নায়েক নিয়ে ডেইলি স্টারের এ কেমন মিথ্যাচার !

বিশ্ববরেণ্য ইসলামী দা’য়ী ডাঃ জাকির নায়েককে নিয়ে চলমান বিত‌র্কের সূত্রপাত করেছে মুলত বাংলাদেশের ইংরেজী দৈনিক ডেইলি স্টার। ঢাকার গুলশানে হোলি আর্টিসান বেকারীতে সন্ত্রাসী হামলার ঘটনার তিন দিন পর জুলাই ৪ তারিখে পত্রিকাটি “মিলিট্রান্ট ফলোয়ড আই এস রিক্রুটার, কনটোভা‌র্সাল পিচার ( বাংলায়: জঙ্গিরা আই এস রিক্রুটার এবং বিত‌র্কীত ধ‌র্ম প্রচারককে অনুসরণ করতো) শিরোনামে তার প্রিন্ট এডিশনে একটি রিপো‌র্ট করে। সেখানে তারা দাবি করে গুলশানে হামলাকারীদের মধ্যে একজন সন্ত্রাসী রোহান ইমতিয়াজ (যার বাবা আহমেদ ইমতিয়াজ ঢাকা মহানগর আওয়ামী লীগের সিনিয়র নেতা) গত বছর ফেসবুকে পীস টিভি থেকে প্রচারিত ডাঃ জাকির নায়েকের একটি বক্তব্য শেয়ার করে বলেছিলেন, সকল মুসলিমকেই সন্ত্রাসে লিপ্ত হওয়া উচিত।

ডেইলি স্টারের সেই সংবাদটি বিশ্লেষণ করে দেখা যায় সেখানে জাকির নায়েক সম্প‌র্কে মিথ্যাচার করা হয়েছে। সংবাদটিটে বলা হয়েছে জাকির নায়েক ইউকে, মালয়েশিয়া, ইন্দোনেশিয়া এবং অন্যান্য অনেক দেশে অবাণ্চিত। কিন্তু পত্রিকা ঘেটে দেখা যায়, জাকির নায়েক মালয়শিয়ায় ব্যান তো নয়ই বরং মালয়শিয়া সরকার ২০১৩ সালে জাকির নায়েককে তার অবদানের জন্য “তকোহ মাল হিজরা” উপাধিতে ভুষিত করেছিল। কিছু দিন আগেও তিনি মালয়েশিয়া সফর করে এসেছেন। সেখানে তিনি স্বয়ং তিনি মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রীর সাথেও সাক্ষাৎ করেছেন। দেশটির অনলাইন পত্রিকা মালয় অনলাইন বৃহস্পতিবার একটি সংবাদে বলে ” জাকির নায়েক ইস হাইলি রিগারডেড ইন মালয়শিয়া ( বাংলায় : মালয়শিয়ায় তিনি খুব উচ্চ সম্মান পেয়ে থাকেন)”।

ডাঃ নায়েক গত বুধবার ভারতীয় ইংরেজি ভাষার টিভি চ্যানেল সিএনএন নিউজ ১৮ এর সাথে একটি ইন্টারভিউতে বলেন, শুধু ইউকে ছাড়া অন্য আর কোন দেশে তিনি ব্যান নন “ডেইলি স্টার সম্পূ‌র্ণ মিথ্যা কথা বলছে,” জাকির নায়েক দাবি করেন। ইউকে ব্যান সম্প‌র্কে তিনি বলেন এটি পলিটিকাল।

তিনি দাবি করেন বৃটেনের আগের সরকার তাকে বৃটেনে আমন্ত্রণ জানিয়েছিলেন কিন্তু ব‌র্তমান কনজারভেটিভ সরকার ক্ষমতায় এসে তাকে ব্যান করে।

আরও দেখুন:  পাঠ্যপুস্তকে মুসলমানিত্ব আংশিক ছাঁটাই : হিন্দুত্বের আংশিক প্রবেশ

“এটি সম্পূ‌র্ণ রাজনৈতিক,” তিনি বলেন। এখন প্রশ্ন হলো ডেইলি স্টার কেন মিথ্যাচার করছে। সোস্যাল মিডিয়ায় অনেক পাঠকই মন্তব্য করছেন ভারতের কাছ থেকে নি‌র্দেশ পেয়েই পত্রিকাটি এমন মিথ্যাচার করলো। আর সেজন্যই ঘটনার তিন দিন পর আজগুবি একটি সম্প‌র্ক আবিস্কার করা হলো। অবশ্য ইসলাম ও ইসলামী ব্যক্তিত্ব নিয়ে ডেইলি স্টারের এই মিথ্যাচার নতুন নয় । দেশের ইসলাম প্রিয় জনতার বিপক্ষে পত্রিকাটি অবস্থান নিয়েছে বহুবার ।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

Back to top button