বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি

অ্যাপেন্ডিক্স, এডেনয়েড, টনসিল —এগুলো অপ্রয়োজনীয় অঙ্গ নয়

সেক্যুলার স্কুলগুলোতে এবং ডাক্তারি বইগুলোতে এখনও পড়ানো হয় যে, মানুষের দেহে কিছু অপ্রয়োজনীয় অঙ্গ রয়েছে, যেগুলো বানর থেকে মানুষ বিবর্তন হওয়ার সময় মানুষের দেহে রয়ে গেছে। দেখানো হয় যে, অ্যাপেন্ডিক্স, এডেনয়েড, টনসিল—এগুলো সব অপ্রয়োজনীয় অঙ্গ। যদি সত্যি সৃষ্টিকর্তা থাকতেন, তাহলে এই অপ্রয়োজনীয় অঙ্গগুলো থাকত না। মানুষের বিবর্তন প্রকৃতির এক ত্রুটিপূর্ণ খেলা দেখেই এ ধরনের বেশ কিছু অপ্রয়োজনীয় অঙ্গ এখনও দেখা যায়।

তবে ২০১০ সালে চারজন বিবর্তনবাদীই এটা প্রমাণ করেছেন যে, এডেনয়িড এবং টনসিল হচ্ছে লিম্ফয়েড টিস্যুর ভাণ্ডার, যা মানুষের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার জন্য প্রয়োজনীয়। বিখ্যাত Grolier Encyclopedia-তে বলা হয়েছে যে, অ্যাপেন্ডিক্সকে এতদিন মনে করা হতো অপ্রয়োজনীয় অঙ্গ, কিন্তু এটি রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতার ব্যবহারের জন্য অন্যতম অঙ্গ।

সাইন্স ম্যাগাজিনের ফেব্রুয়ারি ২০১৩ সংখ্যায় বলা হয়েছে যে, একটি আন্তর্জাতিক গবেষণা দল প্রমাণ করেছেন: কমপক্ষে ৩২ বার অ্যাপেন্ডিক্স-এর বিবর্তন হয়েছে ভিন্ন ভিন্ন প্রাণীতে, যেই প্রাণীগুলো একে অন্য থেকে বিবর্তন হয়নি। অর্থাৎ অ্যাপেন্ডিক্স অঙ্গটি প্রকৃতির কোনো ভুল নয়, এটি একটি উদ্দেশ্য প্রণোদিত অঙ্গ, যা বিশেষ কিছু প্রাণীকেই দেওয়া হয়েছে।

তারা প্রস্তাব করেছেন যে, এই অঙ্গটি মানুষের পরিপাকতন্ত্রে হজমে সুবিধা হবার জন্য প্রয়োজনীয় ভালো ব্যাকটেরিয়াকে সংরক্ষণ করে। যদি কারও বড় ধরনের ডাইরিয়া, কলেরা হয়ে পরিপাকতন্ত্র থেকে প্রচুর পরিমাণে ব্যাকটেরিয়া হারিয়ে যায়, তখন অ্যাপেন্ডিক্স আবার সেই ভালো ব্যাকটেরিয়া পরিপাকতন্ত্রে সরবরাহ করে।

নর্থ ক্যরোলাইনার ডিউক ইউনিভার্সিটি অব মেডিকেল সেন্টারের বিজ্ঞানীরা  জানান, বৃহদান্ত্রের অ্যাপেন্ডিক্স নামক যে অংশটিকে এতোদিন অপ্রয়োজনীয় এবং বিরক্তিজনক বলে মনে করা হতো, তা আসলেই মানুষের জন্য অনেক গুরুত্বপূর্ণ এবং মোটেও অপ্রয়োজনীয় নয়। এখানে জন্ম নেয়া ও বেড়ে ওঠা ব্যাকটেরিয়াগুলো হজমে সাহায্য করে এবং কলেরা ও ডায়রিয়ার মতো মারাত্মক রোগ সংক্রমণের পর পরিপাকতন্ত্রকে আবারো আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আনে।

এ বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রফেসর বিল পার্কার জানান, অস্ট্রেলিয়ার রয়াল মেলবর্ন ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজির মেডিকেল সায়েন্স বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক নিকোলাস ভার্ডাক্সিস জানান, এটি সত্যি এক চমৎকার আবিষ্কার, যেখানে এতো ছোট্ট একটি ব্যাকটিরিয়া এতো চমৎকার একটি জায়গায় থাকতে পারে, এ আবিষ্কারের আগে তা জানাই ছিল না।

আরও দেখুন:  মস্তিষ্কের আকার ও বিবর্তন

সময়ের পরিক্রমায় বিজ্ঞানীরা প্রমাণ করছে যে, মানুষের দেহের ডিজাইনে কোনো ভুল নেই, কোনো অপরিকল্পিত ঘটনা নেই। প্রতিটি অঙ্গ নিখুঁতভাবে তৈরি করা হয়েছে কোনো না কোনো জরুরি কাজের জন্য।

বিবর্তনবাদীদের অপপ্রচারে মুসলিমরা বিভ্রান্ত হয়ে মনে করে—সত্যিই বোধহয় মানুষের দেহে কিছু অপ্রয়োজনীয় অঙ্গ রয়েছে। তারা বুঝতে পারছে না এভাবে তারা আল্লাহর সম্পর্কে একটা খারাপ ধারণা তৈরি করছে যে, তিনি মানুষকে কিছু অপ্রয়োজনীয় অঙ্গ দিয়ে তৈরি করেছেন। আল্লাহ কখনই প্রয়োজন ছাড়া কিছু করেন না, তাঁর প্রতিটা কাজ অত্যন্ত নিখুঁত।

এ সম্পর্কিত আরও পোস্ট

মন্তব্য করুন

Back to top button